হাওড়া হুগলি নদী তীরে ও কলকাতার পশ্চিমে ভারতে দক্ষিণপূর্ব বঙ্গের একটি শহর।

রবীন্দ্র সেতু (হাওড়া ব্রিজ)

হাওড়া আনুষ্ঠানিকভাবে নিজেই একটি শহর এবং এই শহরের বয়স প্রায় পাঁচশো, অর্থাৎ ইতিহাস বলছে হাওড়ার বয়স কলকাতা থেকে অন্তত দুশো বছর বেশি। কিন্তু আসলে এটি কলকাতার সঙ্গে একসঙ্গে এক বিশাল মোগাসিটি হিসাবে গড়ে উঠছে। হাওড়া হুগলি নদীর পশ্চিম তীরে অবস্থিত। বর্তমানে হাওড়া মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এবং হাওড়া পুলিশ কমিশনারেট স্থানীয় প্রশাসন হিসেবে কাজ করে।

কি ভাবে যাবেন

সম্পাদনা

হাওড়া রেল স্টেশন দেশের বৃহত্তম স্টেশন কমপ্লেক্স। এটি পূর্ব রেলওয়ের বৃহত্তম স্টেশন এবং এই স্টেশন দ্বারা ভারতের অন্যান্য অংশ ভালভাবে সংযুক্ত। হাওড়া এবং কলকাতা জুড়ে সংযোগকারী অনেক বাস রুটগুলির একটি প্রধান পরিবহন হাব হাওড়া রেল স্টেশনের কাছেই প্রধান সংযোগকারী রবীন্দ্র সেতু (হাওড়া ব্রিজ)-এর লাগোয়া রয়েছে। হাওড়া শহরের যাওয়ার জন্য হাওড়ার যমজ শহর কলকাতা থেকেও অনেক বাস এবং মিনিবাস রুটের সংযোগ রয়েছে।

 
হাওড়ার মানচিত্র

  • 1 বেলুড় মঠ, হাওড়ার উত্তর অংশে
  • শিবপুর
  • 2 আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু ভারতীয় উদ্ভিদ বৈজ্ঞানিক বাগান  বিদেশি: ৫০₹; ভারতীয়: ৫₹
  • 3 সাঁতরাগাছির ঝিল, হাওড়া শহরের মধ্যভাগে (ট্রেনে করে হাওড়া স্টেশন থেকে ৭ কিলোমিটার, অথবা কলকাতা থেকে বিদ্যাসাগর সেতুর মাধ্যমে ৬ কিলোমিটার)।

কাছাকাছি যান

সম্পাদনা
 
হাওড়া রেলওয়ে স্টেশন, রবীন্দ্র সেতু (হাওড়া ব্রিজ) থেকে দেখা যায।

হাওড়া থেকে হুগলি নদী অতিক্রম করলেই কলকাতা ডাউনটাউন পৌঁচ্ছে যাওয়া যায় এবং সম্ভবত এর কারণ এখানে জলপথ দ্রুত এবং প্রথম স্থানে। হুগলী নদী অতিক্রম করার জন্য কলকাতা ও হাওড়া ফেরি পরিষেবা ব্যবহার খুবই সুবিধাজনক। অনেক জেটি আছে হাওড়ায়। কলকাতার দিকে ফেরিগুলি বাগবাজার, আহিরিটোলা, ফেয়ারলি, চাঁদপাল, বাবুঘাট, প্রিন্সেপ ঘাটের মতো জেটিগুলোর সঙ্গে যুক্ত। হাওড়ার দিকে হাওড়া স্টেশন, রামকৃষ্ণপুর, শিবপুর, বোটানিক্যাল গার্ডেন, বাঁধাঘাট এবং বেলুড় মঠের জেটিগুলো রয়েছে। আপনি ফেরি চড়ার আগে টিকিট কিনুন এবং টিকেটটি দ্বারা অন্য পার্শ্বে পৌঁছান এবং এটি প্রস্থান গেটের কাছে টিকিট পরীক্ষককে দেখান অথবা অন্যথায় আপনাকে শাস্তি দেওয়া হবে!

হাওড়া শহর থেকে কলকাতা অত্যাধুনিক যানবাহন, পাতাল রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় সম্পূর্ণ। হাওড়া ময়দান থেকে বর্তমান হাওড়া স্টেশন এবং হুগলি নদীর নিচে দিয়ে কলকাতার বড়োবাজার, বিনয়-বাদল-দীনেশ বাগ, শিয়ালদহ, সুভাষ সরোবর হয়ে বিধাননগরের সেক্টর ফাইভ ইলেক্ট্রনিক্স কমপ্লেক্স পর্যন্ত যাবে।

কলকাতা এবং হাওড়ার বিভিন্ন অংশে, এমনকি পশ্চিমবঙ্গের অন্যান্য জেলাশহরে যাওয়ার জন্যে সাধারণ এবং বাতানুকূল অনেক বাসরুট হাওড়াতে রয়েছে। হাওড়া থেকে কলকাতা ভ্রমণের জন্য প্রি-পেইড ট্যাক্সি উপলব্ধ আছে।

স্বল্প দূরত্ব ভ্রমণের জন্য, অটো রিকশা, 'টোটো' (ই-রিকশা) এবং সাইকেল রিকশা আছে।